top of page

কাজু - কিশমিশ - বাটায় - এঁচোড়


এঁচোড় !!! গরমকালের অসাধারণ স্পেশাল স্বাদের এক সবজি | যদিও এখন অনেক সবজিই সারা বছরই মাঝে মাঝেই বাজারে দেখা যায় , তবুও .....যে সময়কার যে সবজি ......সেই সময়ে সে স্বাদে অতুলনীয় | তাই গরমে রান্নাঘরের মেনুতে এঁচোড় থাকলে , খাবার টেবিল ভরে ওঠে অনেক খুশিতে আর আনন্দে | ভাতের পাতে টেস্টি টেস্টি এঁচোড়ের মেনু ,.......মাছ ...মাংসের কথাও ভুলিয়ে দেয় |

আমার রান্নাঘরে আমিতো নানাভাবে এঁচোড়ের নানা মেনু তৈরি করি | বাড়ির সবাই যে ...এঁচোড়ের যে কোনো মেনুই খুবই খুবই পছন্দ করে ....আর আমার যে কি ভীষণ ভালো লাগে .......তা বোধহয় বলে বোঝাতেই পারবো না | যাই হোক ...আজ ও আমার রান্নাঘরে এঁচোড় | ভাবলাম আজ যদি একটু অন্য স্বাদে এঁচোড় রান্না করি .....তো মনে হয় .....খাবার টেবিলে খুশির হাওয়াটা একটু বেশিই বইবে ........| খাবার পাতে নতুন নতুন স্বাদই তো ........আমরা সবাই ভীষণই পছন্দ করি | সুতরাং আজ একটু

অন্য স্বাদে রাঁধবো এঁচোড় ...........কাজু আর কিশমিশ বাটা দিয়ে এঁচোড়ের কালিয়া |


মজা করে কিন্তু ...সবুজ কাঁচা কাঁঠাল বা এঁচোড় কে বলা হয় ...গাছ পাঁঠা.....মানে মাংসের সঙ্গে তুলনা করা হয় | আর সত্যি সত্যিই এঁচোড় মাংসের মতো মজাদার করে রান্না করলে .....গরম গরম ভাতে ,মাংসের মতোই জমে যায় ......| প্রতিটি সব্জিতেই প্রকৃতি নানা খাদ্যগুন ভরেই রেখেছে | তাই তো সময়ে .......সময়ের সবজি অবশ্যই খাওয়া উচিত | এঁচোড় ও নানা খাদ্যগুণে সমৃদ্ধ | ভিটামিন ,প্রোটিন ,ক্যালসিয়াম ,ফাইবারে ভরপুর | শরীর সুস্থ ..সবল রাখতে .....অপূর্ব স্বাদের এঁচোড়ের মেনু মাঝে মাঝেই আমাদের খাবার পাতে ,অবশ্যই রাখবো ..............................


উপকরণ :-


  • এঁচোড় - ১ কিলো মতো ( খোসা ছাড়িয়ে ,পরিষ্কার করে নিয়ে ,বড়ো বড়ো টুকরো করে কেটে রাখা , কালিয়া তে এঁচোড় একটু বড়ো বড়ো টুকরো করেই কাটতে হবে )

  • আলু - ৩-৪টি বড়ো সাইজের ( খোসা ছাড়িয়ে কোনটা ৪ টুকরো -কোনটা ৮ টুকরো করে কাটা

  • পেঁয়াজ - ৩-৪টি মাঝারি সাইজের ,বেটে রাখা

  • রসুন - ১২-১৪ কোয়া , বেটে রাখা

  • আদা - ইঞ্চি খানেক , বেটে রাখা

  • কাঁচালঙ্কা - সবুজ আর লাল লঙ্কা মিলিয়ে ৭-৮টা ,বেটে রাখা

  • টমেটো - ১টি , বেটে রাখা

  • কাজু - ২০-২৫ গ্রাম , বেটে রাখা

  • কিশমিশ - ১০-১৫ গ্রাম , বেটে রাখা

  • তেজপাতা - ২টি ,মাঝারি সাইজের

  • গোটা ছোট এলাচ - ৭-৮ টি

  • লবঙ্গ - ৭-৮ টি

  • দারচিনি - ২টি টুকরো ,এক একটি প্রায় ১.৫ ইঞ্চি মতো

  • হলুদগুঁড়ো - ১ চামচ মতো

  • জিরে গুঁড়ো - ৩-৪ চামচ

  • লালঙ্কাগুঁড়ো - ২-৩ চামচ ,ঝাল কিন্তু নিজের নিজের পছন্দমতো

  • নুন - প্রয়োজনমতো

  • চিনি - সুন্দর রং আর তাক তাক স্বাদের জন্য প্রয়োজনমতো

  • তেল - প্রয়োজনমতো

  • গরম মশলার গুঁড়ো ১ - ১.৫ চামচ

  • ঘি - ২-৩ চামচ


পদ্ধতি :-


রান্না শুরুর প্রথমেই ,গ্যাসে কড়াই চাপিয়ে বেশ খানিকটা জল দিলাম | জলের মধ্যে দিলাম অল্প হলুদগুঁড়ো আর অল্প নুন | কড়াইয়ের জল টগবগ করে ফুটে উঠতেই ,প্রথমেই কড়াইতে দিয়ে দিলাম জলে ধোওয়া এঁচোড়ের টুকরোগুলো | জল কিছুক্ষন ফুটে যেতেই ,কড়াইতে দিলাম ,জলে ধোওয়া আলুর টুকরোগুলো | কড়াইয়ের জলে এঁচোড় আর আলু ফুটছে ,এই সময়ে পেঁয়াজ ,রসুন , আদা ,কাঁচালঙ্কা ,টমেটো ,কাজু আর কিশমিশ .....সব একে

একে বেটে রাখলাম |


এবার কড়াইয়ের ফুটন্ত জল থেকে ,জল ঝরিয়ে এঁচোড় আর আলু তুলে নিলাম | গ্যাস বন্ধ করলাম | এঁচোড় একটু গরম জলে দিয়ে নিলে ,এঁচোড়ের কোসো - কোসো ভাবটা কেটে যায় | আবার গ্যাসে কড়াই চাপলাম | দিলাম প্রয়োজনমতো তেল | তেল গরম হলে ,প্রথমে আলুর টুকরোগুলো কড়াইতে নিয়ে ভালো করে ভেজে

নিলাম | কড়াই থেকে ভাজা আলুগুলো তুলে নিয়ে দিলাম জল ঝরানো ,জলে সেদ্ধ এঁচোড়ের টুকরো গুলো | বেশি আঁচে এঁচড়গুলো ভালো করে ভেজে নিলাম |


এরপর কড়াইয়ের ওই তেলের মধ্যেই আর একটু প্রয়োজনমতো তেল দিলাম | তেল গরম হলে দিলাম ,গোটা এলাচ ,লবঙ্গ আর দারচিনির টুকরোগুলো , দিলাম পেঁয়াজবাটা | বেশি আঁচে নাড়তে নাড়তে দিলাম

....রসুন বাটা ,আদা বাটা ,কাঁচালঙ্কা বাটা আর ২টি গোটা তেজপাতা | সমস্ত ভালো করে ভাজতে লাগলাম | সুন্দর ভাজা ভাজা গন্ধ বেরোতেই ,আঁচ কমিয়ে দিলাম টমেটো বাটা ,নুন আর প্রয়োজনমতো চিনি | আঁচ বাড়িয়ে সমস্ত উপকরণ নাড়তে লাগলাম |


কড়াইয়ের উপকরণ বেশ মজে এসেছে ,মনে হতেই আঁচ কমিয়ে দিলাম ,খুব অল্প হলুদগুঁড়ো ,জিরেগুঁড়ো .লালঙ্কাগুঁড়ো | আঁচ বাড়িয়ে সব নাড়তে নাড়তে ,আঁচ কমিয়ে দিলাম কাজু বাটা ,কিশমিশ বাটা ,ভাজা আলুর টুকরোগুলো আর ভাজা এঁচোড়ের

টুকরোগুলো | আঁচ বাড়িয়ে কড়াইয়ের সমস্ত উপকরণ খুব ভালো করে কষতে লাগলাম | এঁচোড় কষার অপূর্ব গন্ধ বার হতেই ,আঁচ কমিয়ে কড়াইতে দিলাম ,প্রয়োজনমতো গরম জল |


আঁচ বাড়িয়ে দিলাম | কড়াইতে রসা টগবগ করে ফুটে উঠতেই ,আঁচ কমিয়ে একটা ঢাকা দিয়ে রান্না মজতে দিলাম | বাহঃ ..কি সুন্দর গন্ধ ! রান্নাঘর ভরে গিয়েছে | কিছুক্ষন পরে ঢাকা খুলে দেখে নিলাম ,

রান্না মজে গিয়েছে কিনা | রান্না হয়ে এসেছে মনে হতেই ,রান্নার স্বাদ চেখে দেখলাম | সব তাক তাক হয়েছে মনে হতেই ,আঁচ বাড়িয়ে রান্নাতে রসার পরিমান ঠিক করে নিলাম | রান্নায় দিলাম গরম মশলার গুঁড়ো আর ঘি | নেড়ে চেড়ে নিয়ে গ্যাস বব্ধ করে দিলাম | রান্নায় দিলাম একটা ঢাকা | তৈরি আজকের মজাদার ....টেস্টি টেস্টি কাজু আর কিশমিশ বাটায় এঁচোড়ের কালিয়া |


বড়োই সুন্দর হলো আজ দুপুরের খাওয়া দাওয়া | গরম ভাতে এঁচোড়ের দারুন স্বাদে মন প্রাণ ভরে গেলো | টেস্টি টেস্টি খাওয়ার মজাই আলাদা | শুধুই আনন্দ .....আনন্দ .....আর আনন্দ .....


আপনারাও আনন্দে থাকুন ,খুব খুব ভালো থাকুন আর থাকুন অনেক অনেক সুস্থ |



20 views0 comments

Comentários


bottom of page