top of page

মুচমুচে - নতুন - আলুভাজা | Crispy - Potato - Fries




মিষ্টি মিষ্টি শীতের আমেজ ভরা সকালে , গরম চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে দুপুরের মেনুর কথা ভাবতে ভাবতে ভাবতে , হঠাৎ আমার আলুভাজা খাওয়ার খুব ইচ্ছে করতে লাগলো | শীতকালের নতুন আলুভাজা !!! আহা - আহা , কি অসাধারণই না খেতে লাগে !!! গরম গরম ভাতে , গরম গরম ডাল , গরম গরম নতুন আলুভাজা আর সঙ্গে একটুকরো লেবু ...........খাওয়ার টেবিল জমে হবে জমজমাট | ছোট থেকে বড়ো সবাই হবে খুশি | কারণ গরম গরম আর মুচমুচে আলুভাজা যে সবারই বড্ডো প্রিয় |


আজ রবিবার | আজ আমরা সবাই বাড়িতে | সকালের জলখাবার ও জমিয়েই সারলাম | ধীরে ধীরে এগোলাম প্রিয় রান্নাঘরের দিকে | এদিকে তো আজকের বাজার আগেই রান্নাঘরে পৌঁছে গেছে | থলি খুলে দেখি অন্য সব আনাজপাতি সঙ্গে রয়েছে ছোট ছোট খানিকটা নতুন আলু | মনে হচ্ছে এক কিলো মতো তো হবেই | থলি থেকে বার করে নিয়ে একটা ফাঁক ফাঁক ঝুড়ির মধ্যে রাখলাম | ঝাঁকিয়ে ঝাঁকিয়ে একটু মাটি বালি ঝেড়ে নিলাম | তারপর পাতলা পাতলা চাকা চাকা করে কেটে কেটে একটা পাত্রে রেখে দিলাম |


সব আলু কাটা হয়ে গেলে , কাটা আলু সমেত পাত্রটা কলের নিচে রাখলাম | আলুগুলো বার বার ধুয়ে নিয়ে সমস্ত জল ফেলে দিতে লাগলাম | এইভাবে ধুতে ধুতে আলু যখন একদম পরিষ্কার হয়ে উঠলো , পাত্রের মধ্যে ই কাটা আলুগুলো জলে ভিজিয়ে রাখলাম | পাত্রের মধ্যে দিলাম অল্প একটু নুন | নুন দিয়ে কাটা আলু কিছুক্ষন ভিজিয়ে রেখে , আলু ভাজলে , আলুভাজা বেশ মুচমুচে হয় (potato fries) | গরম গরম খেতে বড়োই ভালো লাগে | ভাবতে ভাবতেই আমারই তো জিভে জল এসে যাচ্ছে !!!





উপকরণ :-


  • ছোট ছোট নতুন আলু - ১কিলো মতো ( গোল গোল পাতলা পাতলা চাকা চাকা করে কেটে নিয়ে জলে ভেজানো )

  • কাঁচালঙ্কা - স্বাদ বাড়াতে নিজের নিজের ইচ্ছা মতো , আমি নিয়েছি ৪-৫টা

  • নুন - প্রয়োজনমতো

  • চিনির দানা - ৪-৫টা

  • সর্ষের তেল - প্রয়োজনমতো


পদ্ধতি :-


আজ একেবারে সব রান্নার শেষে হবে গরম গরম আলুভাজা | শুরু হলো আজকের রান্না | একে একে দুপুরের সব রান্না প্রায় শেষ | ভাত ও প্রায় হয়ে এলো | ভাত উপুড় দিয়েই আলুভাজা শুরু করবো | মুগের ডাল ও রেঁধেছি কিন্তু | পাতিলেবু ও ছোট ছোট টুকরো টুকরো করে কেটে জলে ভিজিয়ে রেখেছি | .......এবার ভাত উপুড় দিলাম | শুরু করছি দুপুরের প্রধান মেনু ......মুচমুচে গোল গোল আলুভাজা ...................



গ্যাসে কড়াই চাপিয়ে প্রয়োজনমতো তেল দিলাম | তেল বেশ ভালো মতো গরম হয়ে উঠতেই , আঁচ কমিয়ে কড়াইতে ছেড়ে দিলাম , জল ঝরানো কিছুটা কাটা আলু | আঁচ বাড়িয়ে হালকা হাতে মাঝে মাঝে নাড়তে লাগলাম | আলুর গায়ের জল শুকিয়ে এসেছে মনে হতেই আঁচ কমিয়ে দিলাম ২-১ দানা চিনি , এক চিমটে নুন আর ২টো অর্ধেক করে ফাটানো কাঁচালঙ্কা | তবে ভাজতে নুন কিন্তু বুঝে দিতে হবে , কারণ কাটা আলুর টুকরো গুলো হালকা নুনজলেই ভেজানো ছিলো |


এবার আলুগুলো মাঝে মাঝে আঁচ কমিয়ে , মাঝে মাঝে আঁচ বাড়িয়ে হালকা হাতেই নাড়াচাড়া করতে লাগলাম | ভাজা আলুগুলোতে হালকা সোনালী রং ধরে আসতেই , আঁচ কমিয়ে কড়াই থেকে একটা আলুভাজা তুলে নিয়ে চেখে দেখলাম | বাঃ ! বাঃ ! দারুন টেস্টি আর মুচমুচে হয়েছে তো | কড়াই থেকে সব ভাজা আলুগুলো তেল ঝরিয়ে তুলে রাখলাম | আর বাকিসব কাটা আলুগুলো ও এইভাবেই ভেজে ফেললাম | নতুন আলুভাজা গুলো থেকে একটা সুন্দর গন্ধ চারিদিকে ছড়িয়ে পড়তে লাগলো (potato fries) |


অবশেষে সবাই আমরা খাবার টেবিলে | দারুন খুশি আর দারুন আনন্দ নিয়ে সবাই খাওয়া শুরু করলাম | দারুন খুশি আর দারুন আনন্দ নিয়ে সবাই খাওয়া শেষ ও করলাম | দারুন স্বাদে , দারুন সনস্তুষ্টিতে সবার মন একবারে ভরপুর | আনন্দে , খুশিতে একেবারে ভরপুর | দারুন আনন্দ ! দারুন আনন্দ !! দারুন আনন্দ !!!


আপনারাও খুব আনন্দে খুশিতে শীতকে উপভোগ করুন | ভালো থাকুন , সুস্থ থাকুন |


6 views0 comments

Comments


bottom of page