top of page

গলদাচিংড়ি - আলু - আর - পটল | Potol-Chingri-Recipe


ছোট ছোট ১৮ - ১৯ টা গলদা চিংড়ি | কেটেকুটে ,একেবারে পরিষ্কার করে বাজার থেকে আনা | সবারই খুব প্রিয় মাছ | স্বাদে গন্ধে খুবই লোভনীয় | গলদাচিংড়ির মালাইকারি বা ভাপা .......গন্ধে যেমন লোভনীয় .....আহা - হা - হা স্বাদেও তেমনিই অতুলনীয় | কিন্তু ভাবলাম আজ গলদাচিংড়ি দিয়ে অন্য কোনো মেনু রাঁধবো | আর

গলদাচিংড়ি দিয়ে যাই রাঁধি না কেন ........তা ( potol - chingri )স্বাদে গুনে অপূর্ব হবেই হবে ...........|

বাজারের থলি থেকে অন্য সব কিছু নামাতে নামাতে দেখি , কচি কচি টাটকা কয়েকটা পটল | সঙ্গে সঙ্গে ভেবে নিলাম ,আজ গলদাচিংড়ি দিয়ে হালকা রসারসা করে পটল রেঁধে ফেলবো, দিয়ে দেবো কয়েকটা আলু |গরম গরম ভাতে দারুন জমে যাবে | সকালের সব কাজ সেরে নিয়ে ,তাড়াতাড়ি মধ্যাহ্ন ভোজের রান্নায় মন দিলাম |

প্রথমেই রাঁধছি গলদা চিংড়ির ( potol- chingri)মেনু | গলদা চিংড়ি গুলো ভালো করে বার বার জলে ধুয়ে নিয়ে নুন আর হলুদ মাখিয়ে রাখলাম | পটোলগুলোর দুদিক বাদ দিয়ে অল্প অল্প খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে গোটা গোটা কেটে রাখলাম | ৪-৫টা মাঝারি সাইজের আলু , সম্পূর্ণ খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে ৪ টুকরো করে কেটে নিলাম | এবার রান্না করার সব মশলাগুলোও গুছিয়ে নিলাম | শুরু করবো রান্না ........................................... (potol-chingri-recipe)


উপকরণ :-

  • ছোট ছোট গলদাচিংড়ি - ৯০০ গ্রাম

  • পটল - ১ কিলো ,খোসা ছাড়িয়ে গোটা গোটা কেটে জলে ধুয়ে ,জল ঝরিয়ে রাখা

  • আলু - ৪-৫ টা ভালো করে খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে ,৪ টুকরো করে কেটে নিয়ে জলে ভিজিয়ে রাখা

  • টমেটো - ২টো ছোট সাইজের , টুকরো টুকরো করে কেটে নিয়ে ,জলে ধুয়ে রাখা

  • আদা - ইঞ্চি খানেক , খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে টুকরো টুকরো করে কেটে রাখা

  • রসুন - ১২-১৩ টা ছোট ছোট কোয়া ,ছাড়িয়ে রাখা

  • কাঁচালঙ্কা - ১০-১২টা , ঝাল নিজের নিজের পছন্দ মতো

  • গোটা শুকনোলঙ্কা - ২টো ,একটু করে ফাটানো

  • এলাচ - ৫টি

  • লবঙ্গ - ৫টি

  • দারচিনি - ছোট ছোট ২-৩ টুকরো

  • গোটা জিরে - ১ চামচ

  • হলুদগুঁড়ো - ১.৫ থেকে ২ চামচের মতো

  • জিরেগুঁড়ো - ৩-৪ চামচ

  • লাল লঙ্কাগুঁড়ো - ১ - ১.৫ চামচ , প্রয়োজনমতো

  • নুন - প্রয়োজনমতো

  • চিনি - প্রয়োজনমতো

  • সর্ষের তেল - প্রয়োজনমতো

পদ্ধতি :-


প্রথমে গ্যাসে একটা কড়াই চাপিয়ে অল্প তেল দিলাম | তেল গরম হয়ে উঠলেই নুন হলুদ মাখানো গলদাচিংড়ি গুলো কড়াইতে ছেড়ে দিলাম | চিংড়িগুলো একটু সাঁতলে নিলাম | গ্যাস বন্ধ করে দিলাম | এরপর মিক্সিতে জলে ধোয়া আদাকুচি ,রসুনের কোয়াগুলো আর বোটা ছাড়ানো কাঁচালংকাগুলো নিয়ে মিহি করে বেটে নিলাম |


এইবার গ্যাসে অন্য একটা পরিষ্কার কড়াই চাপিয়ে প্রয়োজনমতো তেল দিলাম | তেল ভালোমতো গরম হয়ে যেতেই ,আঁচ কমিয়ে খোসা ছাড়ানো জলে ধোয়া গোটা পটোলগুলো কড়াইতে ছেড়ে দিলাম | আঁচ বাড়িয়েকমিয়ে পটোলগুলো হালকা হালকা রাঙা করে ভেজে তুলে রাখলাম |

কড়াইতে পরে থাকা অল্প পটল ভাজার তেল পরিষ্কার করে নিয়ে ,কড়াই আবার গ্যাসে চাপলাম | প্রয়োজনমতো তেল দিলাম | তেল গরম হয়ে গেলে আঁচ কমিয়ে কড়াইতে ২টো ফাটানো শুকনোলঙ্কা , ১ চামচ মতো গোটা জিরে ,৫টা একটু করে ফাটানো গোটা এলাচ , ৫টা লবঙ্গ আর ২-৩ টুকরো দারচিনির ছোট ছোট টুকরো কড়াইতে ছেড়ে দিলাম | ছেড়ে দিলাম জলে ধোয়া আলুর টুকরোগুলো |

আঁচ বাড়িয়ে কমিয়ে আলুর টুকরো গুলো ভালো করে নাড়তে লাগলাম |


টুকরোগুলোতে হালকা হালকা লালচে রং হয়ে এলে , আঁচ কমিয়ে কড়াইতে দিয়ে দিলাম , মিক্সিতে বেটে রাখা আদা - রসুন আর কাঁচালংকার মিশ্রণটা | আঁচ বাড়িয়ে কমিয়ে সমস্ত ভালো করে কষতে লাগলাম | দিয়ে দিলাম ধুয়ে রাখা টমেটোর কাটা টুকরোগুলো |আলু কষার

ভাজা ভাজা গন্ধ বেরিয়ে আসতেই ,কড়াইতে দিয়ে দিলাম .....হলুদগুঁড়ো , জিরেগুঁড়ো আর শুকনোলঙ্কার গুঁড়ো , প্রয়োজনমতো নুন আর অবশ্যই প্রয়োজনমতো চিনি |

একটু নেড়ে নিয়ে দিয়ে দিলাম সাঁতলানো চিংড়িগুলো আর ভেজে রাখা পটল গুলো | বেশি আঁচে সমস্ত কয়েকবার নাড়াচাড়া করে নিয়ে , রসার পরিমান ঠিক করে কড়াইতে জল দিলাম | রসা টগবগ করে ফুটে উঠতেই আঁচ কমিয়ে , একটা


হালকা ঢাকা দিয়ে রান্না মজতে দিলাম | খুব সুন্দর এক লোভনীয় গন্ধে রান্নাঘর ভরে উঠলো | ঢাকা খুলে মনে হলো রান্না হয়ে এসেছে | রান্না চেখে নিলাম | বাঃ !!! ভারী সুন্দর হয়েছে তো !!! ....সব এক্কেবারে ঠিকঠাক ..........মনে হতেই ,রসার পরিমান ঠিক করে নিয়ে গ্যাস বন্ধ করলাম |


রান্না একটা পাত্রে ঢেলে নিয়ে ,দিলাম একটা ঢাকা | ঢাকা খুলবো একেবারে দুপুরের খাবার টেবিলে | টেবিল জমে উঠবেই | ......আর হলো ও তাই | Potol-Chingri রান্নার সুন্দর স্বাদে সব্বার মন তো ভরে গেলই ....প্রাণ ও ভরে উঠলো আনন্দের তৃপ্তিতে ........


আনন্দে থাকুন ,ভালো থাকুন , ভালো ভালো খান আর অনেক অনেক সুস্থ থাকুন |

7 views0 comments

Comments


bottom of page