top of page

গোলমরিচে - মটরের - ঘুঘনি- কষা


আজ রবিবার | আজ বাড়িতে সবাই আছে | সবাই খুব খুশি | প্রথম কথা আজ ছুটির দিন .দ্বিতীয়ত আজ আমি জলখাবারে মটরশুঁটির কচুরি ভেজে সবাইকে খাওয়াবো | সবারই খুব দুঃখের অভিযোগ ,শীতকাল চলে গেলো ,কিন্তু আমি এখনো সরাইকে স্পেশাল আর মুখরোচক মটরশুঁটির কচুরি ভেজে খাওয়াইনি |তাই আজকে জলখাবারে " মটরশুঁটির কচুরি "|


কচুরি তো ভাজবো ! কিন্তু কচুরির সঙ্গে খাওয়ার জন্য রাঁধবো গোলমরিচের গুঁড়ো ছিটিয়ে মটরের- ঘুগনি- কষা| সবাই একটু বেশিই খুশি হয়ে যাবে |রবিবার তো আমার মটরশুঁটির কচুরি ভাজার কথাই ছিল , তাই সঙ্গে মেনুর কথা ভেবে ,রাতে খাওয়া দাওয়া হয়ে গেলে ,মটর ভিজিয়ে রেখেছিলাম |

উপকরণ :-


  • মটর - ৫০০ গ্রাম

  • গোটা গোলমরিচ - ১-১.৫ চামচ

  • পেঁয়াজ - ৬-৭টি ( খোসা ছাড়িয়ে মিহি করে কুচানো )

  • আদাবাটা - ২ চামচ

  • রসুনবাটা - ১- ১.৫ চামচ

  • কাঁচালঙ্কা - ২-৩টি বাটা ,২-৩টি কুচানো ( ঝাল নিজের নিজের মতো )

  • হলুদ - ১-২ চামচ

  • নুন - প্রয়োজনমতো

  • চিনি - প্রয়োজনমতো

  • সর্ষের তেল - প্রয়োজনমতো


পদ্বতি :-



চা এর পাট শেষ হতেই , ভেজানো মটর জল ঝরিয়ে প্রেসার কুকারে নিলাম | মটর সেদ্ব হওয়ার মতো জল প্রেসার কুকারে দিয়ে ,প্রেসারের ঢাকা বন্ধ করে গ্যাসে চাপলাম |মাঝারি আঁচে মটর সেদ্ব হতে দিলাম | প্রেসারের সিটি বাজতে লাগলো |মটর ঠিকমতো সেদ্ব হয়েছে ,আন্দাজ করে নিয়ে গ্যাস থেকে প্রেসার নামিয়ে রাখলাম |


কম আঁচে কড়াই গ্যাসে চাপলাম |প্রয়োজনমতো তেল দিলাম | কড়াই গরম হওয়ার সময়ের মধ্যে , ছোট হামানদিস্তিতে গোলমরিচ আধ ভাঙা করে রেখে দিলাম | কড়াইয়ের তেল গরম হলে আঁচ বাড়িয়ে পেঁয়াজকুচি গুলো কড়াইতে দিলাম | আঁচ বাড়িয়ে কমিয়ে পেঁয়াজ নরম আর হালকা রাঙা করে ভেজে নিয়ে দিলাম ,আদাবাটা ,রসুনবাটা ,কাঁচালঙ্কাবাটা ,হলুদ ,নুন আর চিনি |



সমস্ত উপকরণ আঁচ বাড়িয়ে কমিয়ে কষতে লাগলাম | ঠিকঠাক কষা হয়েছে মনে হতেই ,প্রেসার কুকার থেকে জলঝরিয়ে সেদ্ব মটর কড়াইতে দিলাম | আঁচ বাড়িয়ে ভালো করে নাড়তে লাগলাম | মটর মাখো মাখো হতেই ভাঙা গোলমরিচ মটরের মধ্যে দিয়ে দিলাম | নেড়ে চেড়ে নিয়ে রান্নার স্বাদ দেখে নিলাম | স্বাদ সঠিক হয়েছে মনে হতেই ,কাঁচালংকার কাটা টুকরো গুলো কড়াইতে দিলাম | গ্যাস বন্ধ করে এবার কচুরি ভাজার প্রস্তুতির শুরুতে মন দিলাম |


জলখাবারের টেবিলে সবার প্লেটে দিলাম গরম গরম ফুলকো ফুলকো মটরশুঁটির কচুরি ...সঙ্গে মটর -ঘুঘনি - কষা |শুনলাম সবার অনেক অনেক প্রসংশা ,দেখলাম সবার অনেক অনেক আহ্লাদ আর অনেক অনেক আনন্দ |


খুশি মনে খেলে সব খাবারই অসাধারণ হয়ে ওঠে | ভালো থাকুন ,সুস্থ থাকুন ,আনন্দে থাকুন |


4 views0 comments

Comments


bottom of page