top of page

নারকেল - দিয়ে - ছোলারডাল | Narkel - Diye - Cholar - Dal




লুচি আর ছোলার ডাল | আহাহা খেতে তো বড়োই মধুর | ভীষণ সুন্দর | খুব লোভনীয় | ছোট-বড়ো সবার কাছে লোভনীয় আর আদরের মেনু | বাংলার ঘরে ঘরে আদরের মেনু | প্রতি বাঙালির রান্নাঘরে মাঝে মাঝেই পৌঁছে যায় | বারোমাসে তেরো পার্বনের দিনে তো অবশ্যই থাকে , কখনো কখনো অন্য দিনেও | বিশেষ করে তো ছুটির দিনগুলোতে , যেদিন সব্বাই বাড়িতে |


আজ আমিও ভেবেছি নারকেল দিয়ে খুব টেস্টি টেস্টি করে ছোলার ডাল রাঁধবো | তবে লুচি দিয়ে খাওয়ার জন্য নয় | আমাদের জলখাবারে আজ নারকেল দিয়ে ছোলারডাল আর গরম গরম রুটি | মনে তো বলছে সবার ভালোই লাগবে | ডাল রুটি যে অনেকেরেই খুব খুব প্রিয় একটি ডিশ | আর খুবই পুষ্টিকর আর স্বাস্থ্যকর ও বটে | কারণ এক দারুন সুষম খাবার এই নারকেল - ছোলার ডাল (Narkel - Diye - Cholar - Dal) |


নারকেল ফলটি কিন্তু আমাদের সবার কাছে এক অমৃত ফল | স্বাদে যেমন অসাধারণ , পুষ্টি গুনেও তেমনি অসাধারণ | চুল ও ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে এই ফলটির ভূমিকা অসীম , এটা তো সারা বিশ্বই জানে কিন্তু দেহের ভেতরের সৌন্দর্য বাড়াতে এই ফলের অবদান যে কি , তার সবটা বোধহয় আমরা অনেকেই জানিনা | আমাদের মানে মায়েদের সব সময়েই চেষ্টা থাকে যে এই সুষম রান্নার উপকরণ গুলো মাঝে মধ্যেই রান্নাঘরে নিয়ে আসতে , রান্নার মাধ্যমে খাবার টেবিলে টেবিলে



পৌঁছে দিতে | মায়েরা মানে প্রতিটি ঘরের গৃহিণীরাই তো আপ্রাণ চেষ্টা করে , সংসারকে কিভাবে সুস্থ রাখা যায় , সুখী রাখা যায় | আর তারা এই চেষ্টায় সফল ও বটে | আর তাই তাদের এই সফল চেষ্টার জন্যই নিজের নিজের সংসারে আমরা সবাই এতো এতো খুশি আর অনেকটা নিরাপদ |



আজ রান্নাটির আর একটি উপকরণ হলো ছোলার ডাল | ফাইবার সমৃদ্ধ , প্রোটিনে ভরপুর এক অসাধারণ উপকরণ | শরীরকে সুস্থ রেখে , শরীরের শক্তি বাড়াতে এর ভূমিকা অসীম | স্বাদেও চটপটা | আর তাইতো বহু টেস্টি টেস্টি খাবারের এক প্রধান উপকরণ এই ছোলার ডাল |


সকালের চায়ের পাট মোটামুটি শেষ | কারোর কারোর একবার তো কেউ কেউ দুবার খেয়ে ফেলেছে | আমি রান্নাঘরে সকালের জলখাবারের জন্য রুটি তৈরিতে ব্যস্ত | রুটি গুলো তৈরি করে নিয়েই শুরু করবো আমার প্রিয় টেস্টি টেস্টি নারকেল - ছোলার ডাল (Narkel - Diye - Cholar - Dal) |


 


 


উপকরণ :-


  • ছোলার ডাল - ২৫০ গ্রাম

  • নারকেল - ছোট একটা , অর্ধেক মালা

  • কাঁচালঙ্কা - গোটা গোটা ৭-৮টা , সুন্দর গন্ধের জন্য

  • গোটা জিরে - চা চামচের ১ চামচ

  • গোটা শুকনোলঙ্কা - ২-৩টে , ফোরণের জন্য

  • হিং গুঁড়ো - ১ চিমটে

  • হলুদগুঁড়ো - খুব সামান্য , ১ চিমটে ( ইচ্ছে না হলে নাও দিতে পারেন )

  • নুন - প্রয়োজনমতো

  • চিনি - প্রয়োজনমতো , দিতেই হবে

  • সর্ষের তেল - প্রয়োজনমতো

  • ঘি - ২ চামচ


পদ্ধতি :-


রুটি তৈরি শেষ হতেই ছোলার ডাল গুলো ভালো করে বেছে নিয়ে ধুয়ে নিলাম | পেসার কুকারে নিয়ে গ্যাসে বসিয়ে দিলাম | ৩- ৪ টা প্রেসারে সিটি পড়তেই গ্যাস বন্ধ করে দিলাম | প্রেসার কুকারের মধ্যেই সেদ্ধ ডাল কিছুক্ষন মজতে লাগলো | এইবার ছোট নারকেল টাকে ফাটিয়ে ২টো ভাগ করে নিলাম | একটা নারকেলের মালা নিয়ে ছুরি দিয়ে মালা থেকে নারকেল ছাড়িয়ে নিয়ে , ছোট ছোট টুকরো করে কেটে রাখলাম |



গ্যাসে কড়াই চাপিয়ে অল্প তেল দিলাম | তেল গরম হয়ে উঠতেই , আঁচ কমিয়ে কুচানো নারকেল গুলো কড়াইতে ছেড়ে দিলাম | আঁচ বাড়িয়ে কমিয়ে নারকেল কুচিগুলো হালকা লাল করে ভেজে নিয়ে , কড়াই থেকে তুলে একটা পাত্রে রাখলাম | গ্যাসবন্ধ করলাম |


এখন প্রেসার কুকারের ঢাকা খুলে দিলাম | ছোলার ডাল খুব সুন্দর সেদ্ধ হয়ে মজে গিয়েছে | সেদ্ধ ডালের মধ্যে দিলাম ১চিমটে হলুদগুঁড়ো , অল্প হিং গুঁড়ো , প্রয়োজনমতো নুন আর প্রয়োজনমতো চিনি | দিলাম জলে ধুয়ে রাখা গোটা গোটা কাঁচালংকাগুলো আর অবশ্যই ভেজে রাখা নারকেলের কুচিগুলো |



এইবার গ্যাসে পরিষ্কার কড়াই চাপিয়ে প্রয়োজনমতো সর্ষের তেল দিলাম | তেল গরম হতেই , আঁচ কমিয়ে দিলাম ৩টে ফাটানো শুকনোলঙ্কা , ১ চামচমত গোটা জিরে | ফোরণের সুন্দর গন্ধে চারিদিক ম ম করে উঠতেই ,কড়াইতে ঢেলে দিলাম সমস্ত উপকরণ সহ প্রেসার কুকারে সেদ্ধ করে রাখা ছোলার ডাল | ঘনত্বর পরিমান ভেবে নিয়ে প্রেসার কুকার ধুয়ে অল্প একটু জল আবার কড়াইতে দিয়ে দিলাম |


বেশি আঁচে কড়াইয়ের ডাল টগবগ টগবগ করে ফুটতে শুরু করলো | সুন্দর লোভনীয় গন্ধ ! আহা আহা আহা সত্যি ...ভীষণই লোভনীয় !! একটু ডাল চেখেই ফেললাম | টেস্টি টেস্টি স্বাদে মুখ ভরে গেলো ....মন ও ভরে গেলো | ডাল রান্না হয়েই এসেছে , মনে হতেই ডালের ঘনত্ব ঠিক করে এনে , ডালের মধ্যে দিয়ে দিলাম ২ চামচ ঘি | হাতা দিয়ে কড়াইয়ের সমস্ত উপকরণ ২-১ বার নেড়ে নিয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিলাম | ডাল ঢেলে নিলাম একটা পাত্রে | পৌঁছে গেলাম খাবার টেবিলে |




টেবিলে আমরা সব্বাই | সবাই আমার দিকেই তাকিয়ে আছে | ভাবটা এমন .....কই দাও ! আর দেরি কেনো ! খাওয়া শুরু হোক ! .....তবে শুরুই হোক | সত্যি তো , শুধু শুধু আর দেরি কেনো | আমরা সবাই আর সবকিছুই যখন তৈরি | আর তাই সবার সামনেই পৌঁছে দিয়েছি প্লেটে প্লেটে গরম গরম রুটি আর বাটিতে বাটিতে গরম গরম নারকেল - ছোলার ডাল (Narkel - Diye - Cholar - Dal) |


শুরু হলো খাওয়া | কয়েক মুহূর্ত শুধু চকম চকম চকম চকম আওয়াজ | তারপরেই অনেকগুলো জোরালো গলার আওয়াজ .....ও হো হো দারুন হয়েছে গো ! আর একটু পাবো ? থাকলে দাও ! অবশ্য না থাকলে .........!! একজন তো জোর গলায় বলেই উঠলো , আমার কিন্তু একটু চাই চা...........ই |ফুরিয়ে গেছে , কথাটি শুনবো না ...না ......না | ...........এইভাবেই নানা ধরণের মজার কথা ,নানান খুশির আওয়াজে আমাদের সকালের জলখাবারের টেবিল সত্যি সত্যিই জমে উঠলো .......| মনের ভাষায় এখানে এখন ,খুশি ,খুশি আর শুধুই খুশি |


তাই বলি কি .........খুশির আমেজে ভরা এই শীতটাকে আপনারাও সবাই উপভোগ করা শুরু করুন না , নানা মজাদার টেস্টি টেস্টি খাবার দাবারের মধ্যে দিয়ে | দেখবেন খুব ভালো লাগবে | খুবই ভালো লাগবে | তারপরেও তো আরো অনেক অনেক আনন্দ উপভোগ তো রয়েছেই | এটা যে আমাদের সকলের পছন্দের শীতকাল !!! সুস্থ থাকুন , আনন্দে থাকুন , অনেক অনেক ভালো থাকুন |

3 views0 comments

Commenti


bottom of page